আমতলীতে চাষির খেতের বাড়ন্ত তরমুজ কুপিয়ে ফাটিয়ে নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা

0
3

আমতলীতে চাষির খেতের বাড়ন্ত তরমুজ কুপিয়ে ফাটিয়ে নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা

মোঃ শহিদুল ইসলাম শাওন, আমতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি :
বরগুনার আমতলীতে মো. মাজহারুল ইসলাম নামের এক চাষির খেতের বাড়ন্ত তরমুজ কুপিয়ে ফাটিয়ে নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা। প্রায় ৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে বর্গা নেয়া ২৪ বিঘা জমিতে এ তরমুজের আবাদ করেছিলেন অসহায় এই কৃষক।
বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) দিবাগত রাতে আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের হরিমৃত্যন্জয় গ্রামের বিলে এ ঘটনা ঘটে। ২২মার্চ সকালে মাজহারুল ইসলাম খেতে গিয়ে দেখেন বড় বড় সাইজের বাড়ন্ত প্রায় ৫ শতাধিক তরমুজ কুপিয়ে ফাটিয়ে টুকরো টুকরো করেছে। উপড়ে ফেলা হয়েছে কিছু গাছও। জানা যায়, চাষি মাজহারুল ইসলামের খেতের তরমুজগুলোর অধিকাংশই আকারে ছোট। গত কয়েকদিন পূর্বে মাজহারুল ইসলামের বাড়ীর মিরাজ. দেলোয়ার, আনোয়ার ,মামুন, ওমেন ,তাকে পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে মারধোর করেন এবং তরমুজ কিভাবে বিক্রি করে তা দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।
শুক্রবার বিকালে বিকেলে ক্ষেতে গিয়ে দেখা যায় অশ্রুসজল চোখে দাড়িয়ে আছেন কৃষক মাজহারুল ইসলাম । কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, অনেক কষ্ট করে দিনরাত শ্রম দিয়ে তরমুজ চাষ করেছি। এখন আমার সব শেষ হয়ে গেল।পারিবারিক বিরোধে আমাদের বাড়ীর ‘ মিরাজ. দেলোয়ার, আনোয়ার, মামুন, ওমেন, আমাকে জোর করে ধরে নিয়ে মারধোর করেছে এবং তরমুজ কিভাবে বিক্রি করে লাভ করবো তা দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। অরাই আমার তরমুজ নষ্ট করেছে। আমি এর বিচার চাই।
অভিযোগের বিষয় ওমেন তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বিকার করেন।
আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী সাখোয়াত হোসেন তপু বলেন, এ ঘটনায় এখোনো কোন অভিযোগ পাইনাই । অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন