কিস্তির জন্য ‘এনজিও’ চাপ দিলে আত্মহত্যা ছাড়া গতি নেই!

0
9

কিস্তির জন্য ‘এনজিও’ চাপ দিলে আত্মহত্যা ছাড়া গতি নেই!

শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ
“পেটে ভাত নেই, কিস্তির জন্য চাপ দিচ্ছে আম্বালা ফাউন্ডেশন” এরকম প্লেকার্ড হাতে নিয়ে গাজীপুরে একটি মানববন্ধনে কিস্তির জন্য চাপ দিলে আত্মহত্যা করবেন বলে জানান ভুক্তভোগীরা।

রোববার (১১ জুলাই) বেলা ১১ টায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাঘেরবাজারে এ মানববন্ধন করা হয়। এতে ভুক্তভোগী শাজাহান বলেন, গতরাতে আমার বাড়িতে গিয়ে কিস্তির জন্য চাপ দেন আম্বালা ফাউন্ডেশনের একজন মাঠকর্মী। পরে তাদেরকে বললাম আমার সন্তানদের সামনে আমাকে অপমান কইরেননা, আমি শীঘ্রই কিস্তির টাকা পরিশোধ করবো। পরে ওই মাঠকর্মী বলেন, গরু বিক্রি করে দ্রুত টাকা পরিশোধ কর। এই কথা বলতে বলতে শাজাহান চোখের পানি ছেড়ে দিয়ে বলেন, করোনাকালে সরকার লকডাউন ঘোষণা করেছে। এই করোনাকালেও যদি আমাদেরকে কিস্তির জন্য চাপ দেওয়া হয় তাহলে আত্মহত্যা করা ছাড়া আমাদের আর উপায় থাকবে না। এছাড়াও অন্যান্য ভুক্তভোগীরা করোনাকালে কিস্তি বন্ধের জন্য দাবি জানান।

এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে জোনাল ম্যানেজার (গাজীপুর) সিদ্দিকুর রহমান জানান, করোনাকালে কিস্তির জন্য চাপ দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। আত্মহত্যা করবে, মানববন্ধন করেছে, এটা তো তাহলে আমাদের জন্য খুবই খারাপ বিষয়। এসময় তিনি একজন মাঠকর্মীকে ফোন করে শাসিয়ে বলেন, তোমাদেরকে করোনাক্রান্ত রোগীদের তথ্য সংগ্রহের কথা বলা হয়েছিল, তোমাদেরকে রেপুটেশন কমানোর জন্য কে বলেছে ? এ ছাড়াও তিনি কিস্তির জন্য চাপ দেওয়া হয়ে থাকলে প্রয়োজনে তাদের বাড়িতে গিয়ে করোনাকালে কিস্তি নেবেন না বলে আশ্বস্ত করে আসবেন বলে জানান।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন