ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান “আশা”র নতুন প্রেসিডেন্ট আরিফুল হক চৌধুরী !

0
12

এম হায়দার চৌধুরী, শায়েস্তাগঞ্জ হবিগঞ্জ:: দেশে বিদেশে ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান “আশা”র নতুন প্রেসিডেন্ট হলেন আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার দক্ষিণ নরপতি গ্রামের আশা‘র প্রয়াত প্রেসিডেন্ট মোঃ সফিকুল হক চৌধুরীর ২য় পুত্র।

উইকিপিডিয়া সূত্রে জানা যায়, আশা (Association for Social Advancement) সংক্ষেপে (ASA)। আশা বিশ্বের সর্ববৃহৎ আত্মনির্ভরশীল ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। বিশ্বখ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনের সমীক্ষায় আশা বিশ্বের শীর্ষতম ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী সংস্থা হিসেবে স্বীকৃত। আশা বিশ্বের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচনের লক্ষ্য নিয়ে ১৯৭৮ সালে যাত্রা শুরু করে।

ডিসেম্বর ২০১১ পর্যন্ত বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার ৫১১টি থানার ৩,১৫৪টি ব্রাঞ্চ কার্যালয়ের মাধ্যমে আশা’র কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ডিসেম্বর ২০১১ পর্যন্ত আশার মোট তহবিলের পরিমাণ প্রায় পাঁচ হাজার সাতশ সাতান্ন কোটি টাকা। বাংলাদেশ ছাড়াও আশা, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, মিয়ানমার, কম্বোডিয়া, ফিলিপাইন, নাইজেরিয়া, ঘানা, কেনিয়া, তানজানিয়া এবং উগান্ডা তে ক্ষুদ্রঋণ বিতরণ করছে।

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে আশা’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট মোঃ সফিকুল হক চৌধুরী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। এতে আশার প্রেসিডেন্ট পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। এরপর ১৩ ফেব্রুয়ারি আশা’র পরিচালনা পরিষদের ১২৯ তম সভায় সর্বসম্মতিক্রমে প্রয়াত প্রেসিডেন্ট মোঃ সফিকুল হক চৌধুরীর ২য় ছেলে আরিফুল হক চৌধুরীকে তার স্থলাভিষিক্ত করা হয়। ইতোপূর্বে তিনি আশা’য় এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্টসহ সংস্থার গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

আশার নতুন প্রেসিডেন্ট আরিফুল হক চৌধুরী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ (ম্যানেজমেন্ট) ও এমবিএ (ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস) ডিগ্রী লাভ করেন। এছাড়াও তিনি স্ট্রাথক্লাইড ইউনিভারসিটি, স্কটল্যান্ড থেকে এমএসসি (ফিন্যান্স) ডিগ্রী অর্জন করেছেন।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন