গাজীপুরে গেজেট সমস্যা সমাধান এবং বনবিভাগের হয়রানি মুলুক মিথ্যে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি

0
27

জি নিউজ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
গেজেট অবমুক্তি এবং বন বিভাগের অসাধু কর্মকর্তাদের দায়েরকৃত মিথ্যা ও হয়রানি মূলক মামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন ও মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে এলাকার ভুক্তভোগী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানী পুর এলাকায় (৩১ডিসেম্বর) বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ৬ দফা দাবি উল্লেখ করে লিফলেট বিতরণ করা হয়। বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রচারিত লিফটে – গাজীপুর জেলাধীন বন বিভাগের গেজেট ভূক্ত সকল সম্পত্তির গেজেট বাতিল করতে হবে।
ভোগদখলে থাকা পৈত্রিক সম্পত্তি যার সিএস, এসএ দাগ ব্যক্তি নামে- তা ভুলবশত বন বিভাগের নামে আর এস দাগ রেকর্ড ভূক্ত হওয়ার অজুহাতে- জমিতে স্থাপনা নির্মাণে বন বিভাগের বাধা দেয়া চলবেনা। সি এস ও এস এ- বিহীন বন বিভাগের নামে রেকর্ড হওয়া আর এস দাগ – বাতিল করতে হবে।
কারো বিরুদ্ধে তদন্ত ছাড়া বন মামলা দেয়া চলবেনা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সমন্বয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির তদন্তে- অভিযুক্ত ব্যক্তির সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেলেই মামলা হতে পারে । সেক্ষেত্রে অভিযুক্ত ব্যক্তি বা ব্যক্তিদের নামে মামলা হওয়ার বিষয়টি তাদের জানাতে হবে !বিনা নোটিশে কাউকে গ্রেফতার করা চলবেনা!
বনাঞ্চল ও জীব বৈচিত্র্য সুরক্ষিত রেখে -পতিত জমিতে সামাজিক বনায়ন করতে হবে! বন বিভাগের অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজশে বনের জমিতে বাড়িঘর নির্মাণে সহযোগিতা, বনের গাছ ও মাটি বিক্রি এবং প্রভাবশালীদের কাছে টাকার বিনিময়ে খাস জমির দখল ছেড়ে দেয়া বন্ধ করতে হবে।
সামাজিক বনায়নের বরাদ্দে স্থানীয় ও দরিদ্র ভূমিহীনদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। ইতিপূর্বের রাজনৈতিক প্রভাবশালী মহল ও অন্য জেলার লোকদের দেয়া বরাদ্দ বাতিল করতে হবে।
ভূমিহীন মানুষের বসতভিটার স্থায়ী বরাদ্দের মাধ্যমে- তাদের বাসস্থান নিশ্চিত করতে হবে। সাধারণ মানুষ ও ভূমিহীনদের- বন বিভাগের হয়রানি মূলক সকল বন মামলা থেকে অব্যাহতি দিতে হবে! তা না হলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেও জানানো হয়।
এসময় হাজার হাজার মানুষ বিভিন্ন শ্লোগান লেখা ব্যানার, প্লেকার্ড বহন করে রাস্তায় মিছিল করতে করতে মানব বন্ধনে যোগ দিতে আসার সময় ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসময় আন্দোলন রত জনতাকে সামলাতে এবং যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ব্যস্ত হয়ে উঠে।
এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় শিক্ষক জসিম উদ্দিন বি. এস. সি, ভাওয়ালগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক, বাঘের বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আমিনুল ইসলাম আমিন, আওয়ামী লীগ নেতা হারুন অর রশিদ বি. এস. সি, বীর মুক্তিযোদ্ধা আফাজউদ্দিন কাঁইয়া, ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম মোল্লা, ইউপি সদস্য শাহজাহান মিয়া, লিয়াকত আলী সরকার, শওকত ওসমান সরকার, ওহাব ফকির, ফিরোজ মিয়া, ডাঃ হুমায়ুন কবির, বাবুল হোসেন সরকার, রাফিকুল ইসলাম মাস্টারসহ, অত্র এলাকার নেতৃবৃন্দ এবং বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর এমদাদুল, প্রফেসর কামরুজ্জামান, সংগঠনের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন, রানা আকন্দ, হালিম, মিলন শেখ, রোকন সহ আরও অনেকে।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন