গাজীপুরে বিধি নিষেধের তৃতীয় দিনেও কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

0
11

গাজীপুরে বিধি নিষেধের তৃতীয় দিনেও কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

গাজীপুরঃ গাজীপুরে কঠোর বিধি নিষেধ ও লকডাউনের তৃতীয় দিনেও মানুষকে ঘরে রাখতে কঠোর অবস্থান প্রশাসন। জেলার বিভিন্ন এলাকায় মানুষকে সচেতন করতে মাইকিং সহ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে।

শনিবার ৩ জুলাই জেলা বিভিন্ন এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সরকার ঘোষিত বিধি নিষেধ বাস্তবায়নের জন্য মিরের বাজার, গাজীপুর চেকপোষ্টে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন সাদিয়া সুলতানা, সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা প্রশাসন, গাজীপুর।এ সময় অনুমোদনবিহীন যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয় এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জনগণকে উৎসাহিত করা হয়। এছাড়াও মিরের বাজার, বসুগাও বাজার ও পুবাইল স্টেশন রোড বাজার এলাকায় টহল অব্যাহত রাখা হয়।অনুমোদনবিহীন যানবাহন চলাচল, গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নাম্বার এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকা এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারায় এবং সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর ৬৬ নং ধারায় মোট ৯ টি মামলা ও মোট ৫২০০ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। সহায়তায় ছিলেন পুলিশ বাহিনীর সদস্যগণ।

গাজীপুর সদর উপ‌জেলা নির্বাহী অ‌ফিসা‌র আব্দুল্লাহ আল জাকীর নেতৃ‌ত্বে আনসার ব্যা‌টেলিয়ন ও জয়‌দেবপুর থানা পু‌লি‌শের সহায়তায় ভাওয়ালগড় ইউ‌নিয়‌নের ভবানীপুর বাজার, বা‌ঘের বাজার ও ঢাকা-ময়মন‌সিংহ হাইও‌য়ে তে মাস্ক প‌রিধান করা ও লক ডাউন কার্যকর করার নি‌মি‌ত্তে মোবাইল কোর্ট প‌রিচালনা করা হয়। অ‌ভিযানকা‌লে ৮টি মামলায় সর্ব‌মোট ৮৮০০/- টাকা জ‌রিমানা করা হয়। এছাড়াও দুস্থ রিকশাওয়ালা, চা বি‌ক্রেতা ও ভিক্ষুক‌দের‌কে লক ডাউন মে‌নে ঘ‌রে অবস্থা‌নে উৎসা‌হিত কর‌তে মাস্ক ও প্র‌য়োজনীয় খাদ্য দ্রব্য বিতরণ করা হয়।

গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার বারিষাব ইউনিয়নে গিয়াসপুর বাজারে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে গরুর হাট পরিচালনা করায় ইজারাদার মোহাম্মদ সেলিমকে ৫০০০/- টাকা জরিমানা করেন ইসমত আরা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কাপাসিয়া, গাজীপুর।

গাজীপুরের উত্তর ছায়াবীথি ও দক্ষিণ ছায়াবীথি সংলগ্ন এলাকায় ( জোড়পুকুরপাড়, হাড়িনাল বাজার,রথখোলা বাজার, টাংকির পাড়,রেলগেট, মাধববাড়ি, বি আইডিসি রোড) করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে কঠোর বিধি নিষেধ বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন হাফিজা জেসমিন, সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা প্রশাসন, গাজীপুর ।

এ সময় অনুমোদিত জরুরী সেবা সংক্রান্ত ঔষধ/ উন্মুক্ত বাজার ব্যতীত অন্যান্য সকল দোকানপাট বন্ধকরণ নিশ্চিত করা হয়।দন্ডবিধি,১৮৬০ এর ১৮৮ ধারা ও ২৬৯ ধারায় যথাক্রমে সরকারী নির্দেশ অমান্য করে অননুমোদিত দোকান খোলা রাখা ও মাস্ক পরিধান না করায় আটটি মামলায় ২৩৫০/- টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।এছাড়া কঠোর বিধি নিষেধ প্রতিপালনে সচেতনতা বৃদ্ধিতে জোর প্রচারণা চালানো হয়।মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সময় সাথে ছিলেন সদর থানা, গাজীপুর মেট্রোপলিটান পুলিশ এর সদস্যবৃন্দ এবং ব্যাটালিয়ন আনসার, গাজীপুর এর সদস্যবৃন্দ।

গাজীপুর জেলার বাসন থানাধীন চৌরাস্তা ও আশপাশের এলাকায় সরকার নির্দেশিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী লক ডাউন বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে মহাসড়কে অবস্থান নেয়া হয় এবং মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন উম্মে হাবিবা ফারজানা, সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা প্রশাসন, গাজীপুর।এসময় পণ্যবাহী ভ্যান, জরুরি পরিষবার আওতায় গাড়ি ও ম্যানুয়াল রিকশা ছাড়া কোন যানবাহন চলাচল করতে দেয়া হয়নি।
মাস্ক বিহীন চলাচল করার কারণে বিভিন্ন পথচারীকে অর্থদন্ড করা হয় । একইসাথে দুস্থ পথচারীদের মধ্যে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ করা হয়। নির্দেশনার আওতাবহির্ভূত সকল দোকানপাট বন্ধ করানো হয়, ক্ষেত্র বিবেচনায় অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।
মাইকিং করে উদ্ভূত করোনা পরিস্থিতিতে সকলকে গৃহে অবস্থানের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়।

মোট মামলা : ৬ টি। আইনঃ দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারা, সড়ক পরিবহণ আইন, ২০১৮ এর ৯২ ধারা।
মোট অর্থদন্ড: ৩,৭০০/-( তিন হাজার সাতশো টাকা মাত্র)মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্যগণ সহায়তা করেন।

গাজীপুর সদর উপজেলার পিরুজালী ও ভাওয়ালগড় ইউনিয়নের বিভিন্ন বাজার, মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট, মির্জাপুর বাজার, বাংলাবাজার, শিকদার মার্কেট এলাকায় সকাল ১০ঃ৩০টা থেকে বেলা ২ঃ৪৫টা পর্যন্ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন তানিয়া তাবাসসুম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, গাজীপুর সদর, গাজীপুর।এসময় সংক্রামক রোগ(নিয়ন্ত্রণ, প্রতিরোধ ও নির্মূল) আইন ২০১৮ এর ২৪ ধারায় ৬ টি মামলায় মোট ১৬,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়। সহযোগিতায় ছিলেন জয়দেবপুর থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন-এর আওতাধীন আমতলী বাজার, হাড়িনাল বাজার, জোড়পুকুরপাড় বাজার, শিববাড়ি মোড়, সালনা বাজার, মাস্টারবাড়ি বাজার এলাকায় সরকারী বিধিনিষেধ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে টহল কার্যক্রম পরিচালনা করেন নীলিমা রায়হানা, সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা প্রশাসন, গাজীপুর । এসময় সালনাস্থিত Colotex Apparel Ltd. এবং মাস্টারবাড়ি বাজারস্থিত গোল্ডমার্ক ব্র্যান্ডের রানী ফুড লিমিটেড নামক দুইটি শিল্পকারখানা পরিদর্শন করে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক সন্তোষজনক কর্মপরিবেশ পাওয়া যায়।টহল কার্যক্রমটি জেলা প্রশাসন, গাজীপুর-এর এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নীলিমা রায়হানা পরিচালনা করেন এবং ক্যাপ্টেন তানভীরের অধীন সেনাবাহিনীর টিম-১ ও এস.আই. প্রবীরের অধীন জি.এম.পি.-র পুলিশ সদস্যগণ সহায়তা করেন।

শনিবার ৩ জুলাই, ২০২১ তারিখ মোবাইল কোর্টের তথ্য:
মোট মোবাইল কোর্ট: ২২, মামলা সংখ্যা: ১৪৯, অর্থদন্ড: ১,১৮,৪০০/- টাকা কারাদন্ড: ০ জন

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন