গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে একটি পক্ষ নানা অপপ্রচারের অভিযোগ

0
29

গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে একটি পক্ষ নানা অপপ্রচারে লিপ্ত থাকার অভিযোগ।

মোঃজিয়াউল হক , শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ৪নং গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম পলাশকে নিয়ে একটি পক্ষ নানা অপপ্রচারে লিপ্ত। এই অপপ্রচারের অংশ হিসেবে একটি মহল দুটি প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

সরেজমিনে পরিদর্শণ ও এলাকাবাসীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অধিদপ্তর কর্তৃক ২০২৩-২৪অর্থ বছরে ৪নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালের চারিপাশে মাটি ভরাট বাবদ ৩লক্ষ ২৬হাজার ৪শত ৫২টাকা এবং বনগাঁও খাঁ পাড়ার আব্দুল্লাহর দোকান থেকে গনির বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা সংস্কারের জন্য ২.১১৪মে:টন কাবিখা গম বরাদ্ধ দেয়া হয়। যাহা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই বিধি মোতাবেক সম্পন্ন করা হয়। কিন্তু অদৃশ্য কারণে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম পলাশ নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই একটি কুচক্রি মহল বারবার তার বিভিন্ন কাজে অহেতুক ভাবে বিব্রত করে আসছে। যাহার কোনটিই সঠিক নয়। ইতিপুর্বেও এমন অভিযোগ আনয়ন করা হয়েছিল, যাহা তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।

এ ব্যাপারে গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম পলাশের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, “উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অধিদপ্তর কর্তৃক ২টি প্রকল্পের কাজ নিয়ম মাফিক সমাপ্ত করা হয়েছে। শুধুমাত্র আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করতে বিরোধী একটি পক্ষ আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্র করছে। যাহা আদৌ সঠিক নয়।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান জানান, প্রকল্প দুটির কাজের মেয়াদ শেষ হওয়াতে সরকারি ভাবে পূণরায় মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়। পরবর্তীতে সময়ের মধ্যে সন্তুোষজনক ভাবে কাজদুটি সমাপ্ত করা হয়েছে। যাহা ইউএনও মহোদয়ও অবগত আছেন।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন