ঢাকার বেইলি রোড অগ্নিকাণ্ডে হবিগঞ্জের মা-মেয়ের মৃত্যু

0
0

ঢাকার বেইলি রোড অগ্নিকাণ্ডে হবিগঞ্জের মা-মেয়ের মৃত্যু হয়েছে

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:: বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুরের মা-মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের বানেশ্বরপুর গ্রামের বাসিন্দা ও দক্ষিণ কোরিয়ার হোন্দাই কোম্পানীর ইঞ্জিনিয়ার পোল্যান্ড প্রবাসী উত্তম কুমার রায়ের স্ত্রী রুবি রায় ও মেয়ে ভিয়াংকা রায় অগ্নিদগ্ধ হয় মৃত্যু বরণ করেন।
তারা ঢাকার মালিবাগের বাসা থেকে কাচ্চি বিরিয়ানি কিনতে গিয়েছিলেন বেইলি রোডের কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টে। আগুনে পুড়ে তাদের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। পরে তাদের লাশ উদ্ধার করে গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করার খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন লাশ সনাক্ত করেন। রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গ থেকে মা-মেয়ের লাশ গ্রহন করেছেন পোল্যান্ড প্রবাসীর ভাগ্নে অয়ন রায়। আজ শনিবার সকালে উপজেলার বানেশ্বর গ্রামে তাদের লাশ পৌঁছার কথা রয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার বানেশ্বর গ্রামের বাসিন্দা ও দক্ষিণ কোরিয়ার হোন্দাই কোম্পানীর ইঞ্জিনিয়ার উত্তম কুমার রায় বর্তমানে পোল্যান্ডের হোন্দাই কোম্পানীতে কর্মরত রয়েছেন। তার স্ত্রী ফিলিপাইনের নাগরিক রুবি রায় গৃহিনী এবং তার মেয়ে ভিয়াংকা রায় ঢাকার একটি বেসরকারী কলেজে এ লেভেলের শিক্ষার্থী। মা-মেয়ে ঢাকার মালিবাগের একটি বাসায় বসবাস করতেন।
অগ্নিকান্ডে স্ত্রী ও মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে গতকাল রাতের বিমানেই দেশে আসার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন পোলান্ড প্রবাসী উত্তম কুমার রায়। আজ সকালে তিনি বাড়িতে পৌঁছবেন বলে জানিয়েছেন পরিবারের লোকজন। এছাড়া একসাথে মা-মেয়ের মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে এসেছে।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন