শ্রীপুরে প্রতারণা করে ৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ১ কবিরাজের বিরুদ্ধে

0
4

শ্রীপুরে প্রতারণা করে ৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ১ কবিরাজের বিরুদ্ধে।

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ
গাজীপুরের শ্রীপুরে রাশিনা আক্তার নামে এক বিধবা নারীর কাছ থেকে কৌশলে ৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে সোলেমান নামের এক কবিরাজ। এ ঘটনায় রাশিনা আক্তার বাদী হয়ে গত( ২২ জানুয়ারি) শ্রীপুর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী নারী ওই নারী জানান,সোলেমান প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে আমার বাড়িতে আসা-যওয়া ছিল এবং আমাকেকে মা বলে ডাকতো।আমিও তাকে ছেলের মতই মনে করতাম।গত ২১ জানুয়ারি সোলেমান একটি ব্যাগ নিয়ে আমার বাড়িতে আসে এবং আমাকে কিছু একটা করিয়া বেলকি লাগাইয়া এর ভেতরে টাকা আছে বলে আমাকে ব্যাগটি রাখতে বলে।আমি তাহার সামনেই সুকেজের ড্রয়ারের ভিতরে ব্যাগটি রেখে দেই।পরবর্তীতে কিছু একটা করিয়া ড্রয়ারে রাখা আমার জমি বিক্রির ৮লাখ ৬০ হাজার টাকা নিয়ে যায়।চলে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর আমি দেখতে পাই সোলেমানের দেয়া টাকা গুলো সব সাদা কাগজের বান্ডেল।পরবর্তীতে সোলেমানকে টাকা নেয়ার কথা জিজ্ঞেস করিলে ৫০ হাজার টাকা কম দিয়ে টাকা ফেরত দিবে বলে জানায়।এবং এবিষয়ে কাউকে কিছু না জানাতে বলে।

অভিযুক্ত সোলেমান উপজেলার শৈলাট গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে। সে এলাকায় সোলেমান কবিরাজ নামে পরিচিত।

এবিষয়ে অভিযুক্ত সোলেমান বলেন,আমি ও-ই মহিলাকে খালা বলে ডাকি।তাদের সাথে আমার ভালো সম্পর্ক রয়েছে। ও-ই মহিলাকে আমার হাতে ৮লাখ ৬০ হাজার টাকার জমি বিক্রি করে দিয়েছি।আমি এলাকায় টুকিটাকি কবিরাজি করি।মহিলার টাকা নেয়ার অভিযোগ সঠিক নয়।

গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য নিজাম উদ্দিন বলেন, মহিলাটি খুব অসহায়। আমার কাছে বিচারের জন্য এসেছিল।যেহেতু অনেক টাকার ব্যাপার আমি তাকে আইনের আশ্রয় নিতে বলেছি।

মাওনা চকপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মিন্টু মোল্লা বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়েছিলাম। ওখানে অভিযুক্ত সোলেমানকে পাওয়া যায়নি।দুই পক্ষের লোকজনকে থানায় আসতে বলা হয়েছে।দুই পক্ষের কাছ থেকে বিস্তারিত শুনে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন