শ্রীপুরে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর মানববন্ধন

0
5

শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ নিজের এবং সমর্থকদের ওপর প্রশাসনের স্টীমরোলার চালানো হচ্ছে বলে মানববন্ধন করে দাবী করেন গাজীপুরের শ্রীপুরের এক স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী। স্বতন্ত্র প্রার্থীর নাম ফরিদ আহমেদ সরকার। তিনি উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়ন থেকে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

সোমবার বেলা ১১ টায় ঢাকা- ময়মনসিংহ মহাসড়কের মুলাইদ এলাকায় এ মানববন্ধন করেন তিনি। মানববন্ধনে তাঁর বিপুল সংখ্যক কর্মী ও সমর্থকরা অংশ নেয়। প্রচারণায় বাধা, কর্মী সমর্থকদের হুমকী ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানায় তারা।

ফরিদ আহমেদ সরকার বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই তার কর্মী সমর্থকদের হুমকী দিয়ে প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে আ.লীগের প্রার্থী আব্দুল বাতেন সরকারের সমর্থকরা। নির্বাচনের দুই দিন পূর্বে মিথ্যা ঘটনায় তাঁর ৪০ জন কর্মী সমর্থকদের নামসহ অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই হুমকী ধমকির কারণে তিনি কোন প্রচারণা চালাতে পারছেন না। স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকেও তিনি কোন সহযোগিতা পাচ্ছেন না। প্রশাসন আমাদের ওরপ স্টীমরোলার চালাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনকে এসব বিষয়ে ১৫ টি অভিযোগ করলেও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি আরো বলেন, মামলা হওয়ার পর তার কর্মী সমর্থকদের উপর পুলিশী হয়রাণী বেড়ে গেছে। তাই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও ভয়ভীতি মুক্ত নির্বাচনী পরিবেশ তৈরীর নিশ্চয়তার জন্য সরকারের কাছে দাবী জানান।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচন কমিশনার আল নোমান জানান, যেকোনো প্রার্থীই অভিযোগ দিলে তা আমরা থানায় ফরওয়ার্ড করি। ফৌজধারী কোনো একশন তো আর আমরা নিতে পারি না। গএটা থানার ব্যাপার।

শ্রীপুর থানার ওসি খন্দকার ইমাম হোসেন জানান, কাউকে হয়রানি করা হয়নি। অভিযোগ বা মামলা হলে তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নিতেই হয়।

আগামী ৫ জানুয়ারী এ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আব্দুল বাতেন সরকার ( নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদ আহমেদ সরকার ( আনারশ), আব্দুল মালেক সরকার( হাতপাখা) ও হারুনুর রশিদ ( চশমা) প্রতিকে অংশ নিচ্ছেন।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন