হবিগঞ্জের বাহুবলে কবর থেকে লাশ উত্তোলন, জনমনে আতঙ্ক!

0
15

হবিগঞ্জের বাহুবলে কবর থেকে লাশ উত্তোলন, জনমনে আতঙ্ক!
.
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জের বাহুবলে একমাসের ব্যবধানে রাতে কবরস্থান থেকে দুটি লাশ উত্তোলন করেছে দূর্বৃত্তরা। এরপর শনিবার গভীর রাতে উপজেলার বড়ইউড়ি চার গ্রামের দেয়াল নামক কবরস্থান থেকে একটি লাশ উত্তোলন করে কয়েক মিটার দূরে ফেলে রাখে দূর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানার এস আই মাকসুদ মিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জানা যায়, বাহুবল উপজেলার ৪নং সদর ইউনিয়নের দেয়াল নামক স্থানে বড়ইউড়ি চার গ্রামের জন্য নির্ধারিত বিশাল আয়তনের একটি কবরস্থান রয়েছে। ওই কবরস্থানে কয়েক যুগ ধরে লাশ দাফন করে আসছেন স্থানীয়রা। গত শনিবার গভীর রাতে উপজেলার বড়ইউড়ি হরিতলা গ্রামের বাসিন্দা মৃত আব্দুস সালাম মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ আনোয়ারা বেগমের লাশ কবর থেকে তুলে কয়েক মিটার দূরে ফেলে রাখা হয়। মাস খানেক আগে বড়ইউড়ি গ্রামের ৯০ বছরের বৃদ্ধ আব্দুল হেকিম মিয়ার লাশ কবর থেকে তুলে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার দূরে ফেলে রাখে দূর্বৃত্তরা। পরের দিন সকালে অক্ষত অবস্থায় আব্দুল হেকিম মিয়ার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন পথচারীরা। খবরটি মূহুর্তের মধ্যেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শত শত মানুষ লাশ দেখার জন্য ভীড় জমান। পরে পরিবারের লোকজন লাশ তুলে নিয়ে পুনরায় কবরস্থানে দাফন করেন। একই ভাবে শনিবার গভীর রাতে আনোয়ারা বেগমের লাশ কবর থেকে তুলে কয়েক মিটার দূরে ফেলে যায় দূর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় বড়ইউড়ি চার গ্রাম সহ বাহুবলের সর্বত্র আলোচনা শুরু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে চরম আতংক বিরাজ করছে। তাছাড়া দেয়াল নামক কবরস্থানটি চোর ডাকাতরা নিরাপদ আস্তানা হিসেবে দীর্ঘদিন ব্যবহার করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে। সেখানে সাপ্তাহ খানেক পূর্বেও উপজেলার ভাবনাকান্দি গ্রামের আব্দুর নুর নামে এক ব্যক্তির দুটি ঘোড়া জবাই করেছে করেছে দূর্বৃত্তরা। পরে এ ঘটনার খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানার এস আই এখলাছুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

স্থানীয়রা আরও জানান, দীর্ঘদিন যাবত ওই কবরস্থানের বট গাছের নিচে বিভিন্ন সময়ে গরুর মাথা পাওয়া যায়। এ ঘটনার কিছুদিন আগে আব্দুর নুর মিয়ার ঘোড়ার চামড়া ও পা গুলো কবরস্থান থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

আপনার মতামত প্রকাশ করেন

আপনার মন্তব্য দিন
আপনার নাম এন্ট্রি করুন